অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে নিজ বাড়িতে প্রাণ হারালেন দম্পতি

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর ডেমরা পূর্ব বক্সনগর এলাকায় নিজ বাসায় অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পরে প্রাণ হারিয়েছেন সাহারা বেগম (৬০) ও আব্দুস সাত্তার (৭০) দম্পতি। বাসা ভাড়া নেওয়ার নাম করে অজ্ঞান পার্টির পাঁচ নারী সদস্য ওই বাসায় ঢুকেছিলেন।

রোববার (২৬ আগস্ট) দুপুরের দিকে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা ওই বাসায় ঢোকে। পরে সন্ধ্যার দিকে তাদের অচেতন অবস্থায় ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হলে সাহারা বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আব্দুস সাত্তারেরও মৃত্যু হয়।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী ইনচার্জ বাবুল মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রতিবেশীরা জানান, বাড়িভাড়া নেয়ার কথা বলে পাঁচ নারী বাসায় ঢুকে তাদের অচেতন করে। পরে তাদের ঢামেক হাসপাতালে নেয়া হলে সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে চিকিৎসক সাহারা বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে আব্দুস সাত্তারও মারা যান।

jagonews24

ঢামেকে সাহারা বেগমের প্রতিবেশী মরিয়ম বেগম জানান, পূর্ব বক্সনগরে এক তলা বাসা রয়েছে সাহারা বেগম ও আব্দুস সাত্তার দম্পতির। রোববার দুপুরের পরে পাঁচ নারী ওই বাসায় ঘর ভাড়া নেওয়ার জন্য যান। কথাবার্তার একপর্যায়ে তারা ওই দু’জনকে খাবারের সঙ্গে কিছু খাওয়ায় এবং তাদের মাথায় মেহেদি পরিয়ে দেয়।

বিকালে এক ভাড়াটিয়া নারী সাহারা বেগমকে ডাকতে যান। কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে ঘর খোলা দেখে ঘরে ঢুকে পড়েন। এ সময় সাহারা বেগম ও আব্দুস সাত্তারকে অচেতন ও ঘরের আসবাসপত্র এলোমেলো অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। পরে তাদের উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক সাহারা খাতুনকে মৃত ঘোষণা করেন। আব্দুস সাত্তারকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তারও মৃত্যু হয়।

মৃত দম্পতির সন্তান আমিনুল ইসলাম জানান, তারা দুই ভাই-বোন। বোনের বিয়ে হয়ে গেছে। তিনি একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি করেন। সকালে অফিসে গিয়েছিলেন তিনি। পরে খবর পেয়ে বাসায় এসে মা-বাবাকে অচেতন অবস্থায় পান তিনি। বাসা থেকে কিছু খোয়া গেছে কিনা, তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেননি তিনি।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ বক্সের বাবুল মিয়া জানান, ওই দম্পতির মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।