আওয়ামী লীগের আয় বেশি ব্যয় কম

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ তাদের ২০১৪ সালের আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দিয়েছে নির্বাচন কমিশনের কাছে। সোমবার দলটির একটি প্রতিনিধি দল ইসি সচিব সিরাজুল ইসলামের কাছে তাদের আয়-ব্যয়ের হিসাব জমা দেয়। সেই হিসাব অনুযায়ী দলটির আয় বেশি। আর ব্যয় কম। এর আগে বিএনপি ইসিতে তাদের হিসাব জমা দিলেও তারা আয়ের চেয়ে ব্যয় বেশি দেখিয়েছে।

দলটির হিসাব অনুযায়ী গত এক বছরে আওয়ামী লীগের আয় হয়েছে ৯ কোটি ৫ লাখ ৪৫ হাজার ৬৪৩ টাকা। আর ব্যয় হয়েছে ৩ কোটি ৪৪ লাখ ৪০ হাজার ৮২১ টাকা। তাদের আয়ের উৎস দেখানো হয়েছে এমপি নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম বিক্রি, অনুদান, সদস্যদের চাঁদা, সদস্য ফরম বিক্রি ইত্যাদি। আর অধিকাংশ টাকা ব্যয় হয়েছে দলীয় কর্মসূচিতে।

নির্বাচন কমিশনে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলে ছিলেন- দলের দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক অ্যাডভোকেট রিয়াজুল কবির কাওসার ও আইনজীবী অ্যাডভোকেট সাইফুদ্দিন খালিদ।

এসময় আবদুস সোবহান গোলাপ সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের এ আয় হয়েছে প্রাথমিক সদস্যদের চাঁদা, এমপিদের চাঁদা, সেন্ট্রাল কমিটির সদস্যের চাঁদা ও বিভিন্ন প্রকাশনা বিক্রি থেকে। আর ব্যয় হয়েছে সভা-সেমিনার আয়োজন, সারাদেশের পার্টি অফিসের পরিসেবা, বিল, অফিসের কর্মচারীদের বেতন এবং অঙ্গ সংগঠনের পেছনে খরচসহ বিভিন্ন খাতে।

ইসির কাছে নিবন্ধিত রাজনৈতিকগুলোর বাৎসরিক আয়-ব্যয়ের হিসাব দেওয়ার সর্বশেষ দিন ছিল গত ৩১ জুলাই। কিন্তু  ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি যথাক্রমে দেড় মাস ও একমাস করে সময় বাড়ানো জন্য আবেদন করে। সেই অনুযায়ী হিসাব জমা দেওয়ার জন্য বিএনপিকে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত সময় বেঁধে দেওয়া হয়।

তবে যেসব দল নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আয়-ব্যয়ের বিবরণী জমা দেননি এবং ইসিতে সময় বাড়ানোরও আবেদন করেনি তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন