আট গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে লিভারপুলের শিরোপা উদযাপন

প্রকাশিত

মুক্তমন ডেস্কঃ রেকর্ড সাত ম্যাচ হাতে রেখে শিরোপা নিশ্চিত হলেও ট্রফি ‍নিয়ে উদযাপনটা বাকি ছিল লিভারপুলের। সেটাও হয়ে গেল বুধবার রাতে। আট গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে চেলসিকে ৫-৩ গোলে হারিয়েছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল।

অ্যানফিল্ডে গোলবন্যার শুরু ২৩তম মিনিটে। বক্সের বাইরে থেকে রকেটগতির শটে লিভারপুলকে এগিয়ে দেন নাবি কেইতা। ৩৮ মিনিটে ফ্রিকিক থেকে সরাসরি বল জালে জড়িয়েছেন ট্রেন্ট অ্যালেক্সান্ডার আর্নল্ড। তৃতীয় গোলটা জর্জিনিও ভেইনাল্ডামের। ৪৩ ‍মিনিটে কর্নার থেকে বল ক্লিয়ার করতে পারেনি চেলসি, তিনিও জোরালো শটে বক্সের ভেতর থেকে গোল করেছেন বিরতির আগেই। অলিভিয়ের জিরু বিরতির আগে এক গোল শোধ করে চেলসিকে কিছুটা স্বস্তি দিয়েছিলেন। কিন্তু ৫৪ মিনিটে তাও কেড়ে নিয়েছেন রবার্তো ফিরমিনো। পুরো মৌসুমে অ্যানফিল্ডে গোল করা হয়নি ব্রাজিলিয়ানের।

তার নামের সঙ্গে রেকর্ডটা বেমানানই ছিল। ফিরমিনো গোল করলেন শেষ সুযোগে। আনর্ল্ড ক্রস করেছিলেন আগেভাগেই, চেলসির দুই ডিফেন্ডারের ফাঁক দিয়ে মাপা ক্রসে মাথা ছুঁয়ে গোল করেন ফিরমিনো।

অ্যানফিল্ডের আকাশে আতশবাজি ফুটতে শুরু করে দিয়েছে দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই। লিভারপুলও এগিয়ে ছিল ৪-১ ব্যবধানে। ৬১ মিনিটে ট্যামি আব্রাহাম এক গোল শোধ করলেন, ক্রিশ্চিয়ান পুলিসিচ ৪-৩ এ ব্যবধান নামিয়ে আনলেন ৭৩ মিনিটে। সাবেক শিষ্যের গোল দেখে ডাগ আউটে ইয়ুর্গেন ক্লপের মুখে মুচকি হাসি। ম্যাচের প্রতিচ্ছবি ওই মুহুর্ত। চেলসি আর বাকি সময়ে ম্যাচের নাগাল পায়নি। ব্লুজদের জালে অক্সলেড চেম্বারলেইন আরো এক গোল দিয়ে লিভারপুল ম্যাচ জিতেছে ৫-৩ ব্যবধানে। ৩০ বছর পর লীগ শিরোপা উদযাপনেও তাই হতাশার ছাপ পড়েনি লিভারপুলের। রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে জিতে দারুণ এক রেকর্ডও গড়ল অলরেডরা। লীগের এক মৌসুমে নিজেদের সবচেয়ে বেশি ৩১ জয়।

শেয়ার করুন