এবার বলিউডের পথে পরীমনি

প্রকাশিত

বিনোদন ডেস্ক : বলিউডের সাথে ঢাকাই ছবির সম্পর্ক ও বাণিজ্যিক যোগাযোগের উন্নয়ন ঘটাতে তথ্য মন্ত্রণালয়ের আমন্ত্রণে সোমবার ঢাকায় এসেছেন বলিউডের বিখ্যাত নির্মাতা-প্রযোজক মুকেশ ভাট ও রমেশ সিপ্পি। তাদের আগমন উপলক্ষে ওইদিন সন্ধ্যায় ঢাকা ক্লাবে তথ্য মন্ত্রণালয় আয়োজনে এক ঘরোয়া আড্ডার আয়োজন করা হয়। সেখানে আমন্ত্রণ পেয়ে হাজিরা দেন বাংলাদেশের অনেক নির্মাতা- প্রযোজক ও বিভিন্ন অঙ্গনের তারকারা। হাজির ছিলেন চিত্রনায়িকা পরীমনিও। ঘরোয়া আড্ডার ফাঁকে ফাঁকে তারা বিখ্যাত দুই নির্মাতার সাথে ফটোসেশনেও অংশ নেন।

বলিউডের ‘আশিকি’ ছবির নির্মাতা মুকেশ ভাটের সাথে তোলা দুটি ছবি চিত্রনায়িকা পরীমনি তার ফেসবুকে পোষ্ট করেন। সেই ছবিগুলো দেখেই বেশ কিছু গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হচ্ছে- বলিউডে অভিনয় করছেন পরীমনি। বিষয়টি আলোড়ন তুলেছে সোশাল মিডিয়াতেও।

কিন্তু খোঁজ নিয়ে জানা গেছে এই খবরের কোনো ভিত্তি নেই। বলিউডের ওই দু্ই নির্মাতা পরীমনির বিষয়ে তো দূরের কথা ঢাকাই ছবির বিষয়েও আগ্রহ দেখাননি। তাদেরকে তথ্য মন্ত্রনালয় ও ঢাকাই ছবির পক্ষ থেকে যৌথ প্রযোজনার জন্য প্রস্তাব দেয়া হয়েছিলো। তারা সে প্রস্তাবে সাড়া দেননি। উল্টো তারা দাবি করছেন, এদেশের সিনেমা হলে বলিউডের ছবি মুক্তির অনুমতি।

অবশ্য তথ্য মন্ত্রনালয়ও সে দাবিতে অনিচ্ছা প্রকাশ করেছে।

এমন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সফরে আসা দুই বলিউড কিংবদন্তির একজনের সাথে পরীমনির ছবি নিয়ে ভুল সংবাদ প্রকাশে ক্ষেপেছেন চলচ্চিত্র বোদ্ধারা। সেইসাথে পরীমনি নিজেও বিব্রতকর পরিস্থিতির শিকার হচ্ছেন।

অনেকেই তাকে ফোন করে এই বিষয়ে নানা তথ্য জানতে চাইছেন। বিষয়টি তার কাছে খুবই হতাশার বলে মনে হচ্ছে।

পরী বলেন, ‌‌‌‌‌‌‌‌‌‘মুকেশ স্যার অনেক বড় মাপের একজন মানুষ। তারসাথে প্রথম সাক্ষাৎ হয়েছে সেজন্যই ছবি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করেছি। তাই দেখে অনেকে ধরে নিয়েছেন আমি বলিউডে ছবি করছি। কিন্তু এধরণের কোনো আলোচনাই হয়নি। তাই এই নিউজও সত্যি নয়।’

প্রসঙ্গত, অনেক সম্ভাবনার দ্বার খুলে চলচ্চিত্রে আগমন ঘটালেও নিজেকে তেমন করে প্রমাণ করতে পারছেন না পরীমনি। তার অভিনীত মুক্তি পাওয়া পরপর চারটি ছবিই মুখ থুবড়ে পড়েছে বক্স অফিসে। এ মুহূর্তে মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে পরীমনি অভিনীত ‌‌‌‌ও প্রযোজিত সরকারি অনুদানের ছবি ‘মহুয়া সুন্দরী’। এছাড়া তিনি শাকিবের বিপরীতে শফিক হাসানের ধুমকেতু ছবিতেও কাজ করছেন।

শেয়ার করুন