কচুয়ায় নবম শ্রেণির ছাত্রী খুনের ঘটনায় গ্রেফতার ২

প্রকাশিত

কচুয়া (চাঁদপুর) প্রতিনিধি : চাঁদপুর জেলার কচুয়া উপজেলাধীন বড় হায়াতপুর গ্রামের নিজ বাড়ির অদূরে একটি বিল থেকে জান্নাতুল নাঈম মিশু(১৪) নামে নবম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীর লাশ উদ্দ্বার পরবর্তী ঘাতক নুর আলম ও সজীব হোসেনকে গ্রেফতার করেছে কচুয়া থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত নুর আলম (২৫) বড় হায়াতপুর গ্রামের মনির হোসেনের পুত্র এবং সজীব হোসেন (১৯) ফরিদগঞ্জ থানার গাব্দেরগাঁও গ্রামের আমির হোসেনের পুত্র যেকিনা বড় হায়াতপুর গ্রামে নানার বাড়িতে বসবাস করে।

নিহত মিশুর পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার ( ৩১ জুলাই) দুপুরে মিশু তার পালিত ছাগলের জন্য ঘাস কাটতে বাড়ি থেকে বের হয়। কয়েক ঘন্টা অতিবাহিত হলেও মিশু বাড়ি না ফেরায় খোঁজাখুঁজি শুরু হয়। এ অবস্থায় গত ১ আগস্ট শনিবার মিশুর নিখোঁজ বিষয়ে কচুয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি ( নং- ১২) করা হয়।

পরদিন দুপুরে বড় হায়াতপুর গ্রামের দক্ষিণ পূর্ব পাশে ধানি জমির বিলে মিশুর ভাসমান লাশ পুলিশ উদ্ধার করে। ৩ আগস্ট মিশুর মা শেফালী বেগম বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন ( নং-২)। মিশুর বাবা মো: হানিফ প্রবাসে থাকেন।

কচুয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মো: ওয়ালী উল্লাহ প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান,গ্রেফতারকৃত নুর আলম ও সজীব হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে এবং তারা হত্যাকাণ্ডে সম্পৃক্ত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছে। তদন্তের স্বার্থে বেশি কিছু তিনি প্রকাশ করেন নি।


এদিকে মিশুর নিজ বিদ্যালয় চাঁদপুর এম এ খালেক স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষক / কর্মচারীবৃন্দ মিশুর হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছেন। এলাকাবাসী, সচেতন নাগরিকগণ ও বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এতে সংহতি প্রকাশ করেন।

শেয়ার করুন