কলকাতা বন্দরে প্রবেশাধিকার চায় বাংলাদেশ

মুক্তমন রিপোর্ট, ঢাকা: আমদানি-রপ্তানির সুবিধার্থে কলকাতা বন্দরে প্রবেশাধিকার চায় বাংলাদেশ। প্রবেশাধিকার পেলে পশ্চিমবঙ্গ সীমান্তে দেশের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে বাংলাদেশ সরাসরি ভারতীয় বিনিয়োগ আকর্ষণ করতে পারবে। গত ৭ ও ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় দুই দেশের বাণিজ্যসচিব পর্যায়ের বৈঠকে এ বিষয়ে একটি প্রস্তবনা দেয়া হয়েছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষকে। তবে এতে বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত ও নেপালের উপ-আঞ্চলিক ব্যবসায়িক উদ্যোগগুলোও লাভবান হবে।এর আগে দ্বিপাক্ষিক একটি চুক্তির মাধ্যমে ভারতীয় বন্দরে প্রবেশাধিকার পেয়েছে নেপাল ও ভুটান। এই দুই দেশই ভারতের ভূখণ্ড হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে। এরমধ্যে নেপাল সড়কপথে এবং ভুটানের সড়ক ও জলপথে প্রবেশের সুবিধা রয়েছে। বিবিআইএন (বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত, নেপাল) চুক্তির মাধ্যমে চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব্যবহারে দুই দেশকেই সহায়তা দেয় ভারত। ইতিমধ্যে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোকে ত্রিপুরা হয়ে চট্টগ্রাম বন্দর ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে বাংলাদেশ।
এ নিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে নদীপথ ব্যবহারের চুক্তির ফলে আশুগঞ্জ বন্দর ব্যবহারের সুবিধা পেয়েছে ত্রিপুরা রাজ্য। এতে বাংলাদেশ হয়ে কলকাতা বন্দর ব্যবহারও করতে পারবে রাজ্যটি। ফলে কলকাতার সঙ্গে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোর দূরত্বও কমে আসবে।এখন বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে রেলপথ ও নদীপথে সংযোগ স্থাপিত হলে দেশের পশ্চিমাঞ্চলে ভারতীয় বিনিয়োগ আকর্ষণ সম্ভব হবে।