কুষ্টিয়ার মিরপুরে বিভিন্ন ইটভাটায় অভিযান

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়া জেলায় ব্যাঙের ছাতার মত যত্রতত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ১৪৯টি ইটভাটায় প্রস্তুতকৃত ইটের সাইজ বিএসটিআই ও গণপূর্ত বিভাগ কর্তৃক নির্ধারিত মাপের চেয়ে ছোট করে বাজারজাত ও ভোক্তা ঠকানোর অভিযোগে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়েছে। আজ সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তর কুষ্টিয়া ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সমন্বয়ে এ অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযান চলাকালে নির্ধারিত মাপের চেয়ে ইটের সাইজ ছোট পাওয়ায় জেলার মিরপুর উপজেলার ভাঙ্গা বটতলা, অঞ্জনগাছী নিমতলা, নয়নপুর ও নিমতলা বাজার এলাকার ৪টি ভাটা ইটভাটা মালিকের অর্থদন্ডে দন্ডিত করেন। এর মধ্যে ৩টি ভাটার প্রত্যেকটিকে ৫০ হাজার টাকা করে এবং অপরটিকে ৪০ হাজার টাকাসহ মোট ১লক্ষ ৯০হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংক্ষরন অধিদপ্তর কুষ্টিয়ার সহকারী পরিচালক সেলিমুজ্জামান।
জরিমানা দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন মিরপুর উপজেলার ভাঙ্গা বটতলা গ্রামের মেসার্স লাবণী ব্রিকস্, অঞ্জনগাছী নিমতলা গ্রামের সোনালী ইট ভাটা, নয়নপুর গ্রামের মেসার্স কে এস ব্রিকস্ এবং নিমতলা বাজার এলাকার জনতা ইট ভাটা। অভিযুক্ত ভাটা মালিকরা তাৎক্ষনিক নিজেদের অপরাধ স্বীকার করে দন্ডিত অর্থ প্রদান করেন এবং যথা সম্ভব দ্রুততম সময়ের মধ্যে তাদের ভাটায় প্রস্তুতকৃত ইটের নির্ধারিত সাইজ নিশ্চিত করার অঙ্গীকার করেন।
জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তর কুষ্টিয়ার সহকারী পরিচালক সেলিমুজ্জামান বলেন, চলমান বাজার মনিটরিং কর্মকান্ডের অংশ হিসেবে সোমবার দুপুরে কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলায় পরিচালিত অভিযানে ইটভাটা মালিকদের বিরুদ্ধে সচেতন ভাবে প্রস্তুতকৃত ছোট সাইজের ইট বাজারজাত করে ভোক্তা ঠকানোর অভিযোগ প্রমানিত হওয়ার অপরাধে তাদের জরিমানাসহ সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে চলমান এই অভিযান অব্যহত থাকবে বলে তিনি জানান।