জামিন পেলেন টিকটক ‘অপু’

প্রকাশিত

মুক্তমন ডেস্ক : পথচারীকে মারধরের মামলায় গ্রেপ্তার টিকটক ভিডিও নির্মাতা ইয়াসীন আরাফাত অপুর জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত আজ সোমবার জামিন মঞ্জুর করেন।

এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের অপরাধ ও তথ্য বিভাগের উপ–পরিদর্শক (এসআই) জালাল উদ্দিন। তিনি বলেন, উভয়পক্ষের শুনানি নিয়ে আদালত টিকটক ভিডিও নির্মাতা ইয়াসীন আরাফাত অপুর জামিন মঞ্জুর করেছেন। এই মামলায় আরও চার আসামি আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। শুনানি নিয়ে আদালত তাঁদের জামিন মঞ্জুর করেন।

এ মামলার অপর আসামি নাজমুল গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে আছেন। গত ৩ আগস্ট রাজধানীর উত্তরা পূর্ব থানার মামলায় গ্রেপ্তার হন ইয়াসীন আরাফাত। পরদিন তাঁকে আদালতে হাজির করা হয়। ঢাকার সিএমএম আদালত তাঁকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

উত্তরা পূর্ব থানার উপপরিদর্শক আজিজুর তালুকদার বলেন, সেদিন (২ আগস্ট) রাতে অপু উত্তরা ৮ নম্বর সেক্টরের পাবলিক কলেজের সামনে আড্ডা দিচ্ছিলেন ও টিকটক ভিডিও বানাচ্ছিলেন। অপুর সঙ্গে বেশ কিছু তরুণ ছিলেন। তাঁদের জমায়েতের কারণে গলির রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। একজন গাড়িচালক ওই রাস্তা দিয়ে বেরোনোর জন্য হর্ন বাজালেও কানে তোলেননি তাঁরা। উল্টো গাড়িচালকের ওপর হামলা চালান। এতে তাঁর মাথা ফেটে যায়। এই ঘটনায় উত্তরা পূর্ব থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী।

পুলিশ জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অপরাধের দায় স্বীকার করেছেন অপু। ঘটনাস্থলের ভিডিও ফুটেজ উদ্ধার করা হয়েছে।

ইয়াসীন আরাফাত অপু ‘টিকটক অপু’ নামে পরিচিত । টিকটকে তাঁর বিপুলসংখ্যক অনুসারী আছে। পুলিশের উত্তরা বিভাগের উপকমিশনার নাবিদ কামাল সাংবাদিকদের বলেন, ‘টিকটক অপু’ ও তাঁর সঙ্গীরা কিশোর গ্যাং হিসেবে আত্মপ্রকাশের চেষ্টা চালাচ্ছিলেন । তাঁরা মাদক বা অন্য কোনো অপরাধে সম্পৃক্ত কি না খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

রং করা ঝাঁকড়া চুলের অপু ও তাঁর সহযোগী নাজমুলকে ৩ আগস্ট পুলিশ যখন গ্রেপ্তার করে গাড়িতে তোলে, তখন স্থানীয় বেশ কয়েকজন তাদের ওপর হামলা চালায়। কাউকে কাউকে তাঁর চুল ধরে টানতেও দেখা যায়।

শেয়ার করুন