ড. জাফর ইকবালের উপর হামলায় বিএনপির নিন্দা

মুক্তমন রিপোর্ট, ঢাকা : শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জাফর ইকবালের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাকে আরেকটি চক্রান্ত উল্লেখ করে এর নিন্দা জানিয়েছে বিএনপি। শনিবার সন্ধ্যায় গুলশানে চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে জ্যেষ্ঠ নেতাদের বৈঠকের পর বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, অধ্যাপক জাফর ইকবালের ওপর হামলার ঘটনার আমরা তীব্র ভাষায় নিন্দা জানাচ্ছি।
‘আমরা কখনোই এই ধরনের সন্ত্রাসের পক্ষে নই। আমরা মনে করি যে, এটা আরেকটা চক্রান্ত। যারা দেশে এই ধরণের ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে চায় এটা তাদেরই চক্রান্ত।’ খুলনার জনসভায় খালেদা জিয়ার সাজা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘‘সম্পূর্ণ মিথ্যা তথ্য জালিয়াতি একটা কাগজের ওপর ভিত্তি করে শুধুমাত্র রাজনীতি থেকে দূরে সরানো জন্য, বিএনপিকে নির্বাচন থেকে দূরে সরিয়ে রাখার জন্য তাকে সাজা দিয়েছেন।” তারা জানেন যে, `তাদের পক্ষে কখনো একটা সুষ্ঠু নির্বাচন তাদের পক্ষে নেয়া সম্ভব হবে না। সেজন্য এটা (সাজা) দিয়েছেন।’ বিকাল সাড়ে ৪টায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যরা দলের ভাইস চেয়ারম্যান, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্যবৃন্দ, যুগ্ম মহাসচিব ও সাংগঠনিক সম্পাদকদের যৌথ বৈঠক করেন। বৈঠকে খালেদা জিয়ার জামিন বিলম্ব ও চলমান কর্মসূচি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। বৈঠকের পর মির্জা ফখরুল বলেন, ‘‘ দেশনেত্রীর জামিন না হওয়ায় নেতৃবৃন্দ উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। একই সঙ্গে নেত্রী মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার পক্ষে মত দিয়েছেন। পরবর্তি কর্মসূচি আমরা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এর মধ্যে বিভাগীয় শহরগুলোতে জনসমাবেশেসহ বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নিয়েছি।” স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে মওদুদ আহমদ, জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান ও আমীর খসুর মাহমুদ চৌধুরী ছিলেন।