মুজিববর্ষ উপলক্ষে এক্সপ্রেসওয়ে ও সেতু জনগণকে উপহার দিলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত

মুক্তমন ডেস্ক: এক্সপ্রেসওয়ে ও সেতুসহ নানা প্রকল্প উদ্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মুজিববর্ষে এই প্রকল্পগুলো জনগণকে উপহার দিলাম। এই প্রকল্পের কারণে দেশের মানুষ অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হবে।

ঢাকা খুলনা মহাসড়কের যাত্রবাড়ী মাওয়া-ভাঙ্গা ৮ লেনের এক্সপ্রেসওয়ে, খুলনা, বরিশাল ও গোপালগঞ্জে নির্মিত ২৫টি সেতু, তৃতীয় কর্ণফুলী সেতুর আওতায় ৬ লেনের এ্যাপ্রোচ সড়ক উদ্বোধনকালে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার গনভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই প্রকল্পগুলো উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, ঢাকা থেকে মাওয়া পর্যন্ত দেশের সর্বপ্রথম এক্সেস কন্ট্রোল এক্সপ্রেসওয়ে সেতু আমরা নির্মাণ করেছি। এই জটিল কাজটি আমাদের সেনাবাহিনী দক্ষতার সাথে করেছে। এখন খুব দ্রুত এই সেতু দিয়ে টুঙ্গিপাড়া যেতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, আমরা নিজেস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু তৈরি করছি। বিশ্ব ব্যংকের দুর্নীতির অভিযোগকে আমরা চ্যালেঞ্জ করেছিলাম। এক্সেপ্রেসওয়ে আমাদের দেশে আগে কখনো হয়নি। যেখানে হাইওয়েতে আর কাউকে আসতে হবে না। সবাই সহজেই যাতায়াত করতে পারবে।

প্রধানমন্ত্রী আরও জানান, আগামী বছর পদ্মা সেতু চালু হলে ঢাকা থেকে পদ্মা সেতু হয়ে ভাঙ্গা যেতে সড়কযানে লাগবে মাত্র ৪২ মিনিট। তবে এখন ঢাকার যাত্রাবাড়ী থেকে এই এক্সপ্রেসওয়ে হয়ে সড়কযানে সরাসরি যেতে লাগবে প্রায় আধাঘণ্টা। এই মহাসড়ক ব্যবহারের আগে যাত্রাবাড়ী থেকে মাওয়া যেতে লাগত গড়ে দুই ঘণ্টা। এখন লাগছে ৩০-৪০ মিনিট। তবে প্রথম বুড়িগঙ্গা সেতুতে টোল আদায়ের জন্য যানজট হচ্ছে।

শেয়ার করুন