শরণার্থী ঠেকাতে হাঙ্গেরিতে জরুরি অবস্থা

প্রকাশিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : শরণার্থীদের ঢল ঠেকাতে হাঙ্গেরি সরকার দেশটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে। এর আগে সোমবার অবৈধভাবে প্রতিবেশি রাষ্ট্র সার্বিয়ার সীমান্ত দিয়ে দেশটিতে প্রবেশের সময় অন্তত ১০ হাজার অভিবাসীকে গ্রেফতার করা হয়। খবর আল জাজিরার।

এর আগে দেশটিতে একটি আইন পাস করা হয়। নতুন এ আইনে বলা হয়েছে, সার্বিয়া বা অন্য কোনো দেশের সীমান্ত দিয়ে হাঙ্গেরিতে প্রবেশের চেষ্টা করলে পুলিশ যে-কাউকে গ্রেফতার করতে পারবে। এছাড়া অবৈধভাবে সীমানা অতিক্রমকারীদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি অপরাধে মামলাও করা হবে।

hangaryস্থানীয় সময় সোমবার মধ্যরাত থেকে এ আইন কার্যকর হয়। এরপরই সোমবার ১০ হাজার অভিবাসীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

হাঙ্গেরি পুলেশর মুখপাত্র ভিক্টোরিয়া সিজার কোভাকস বলেন, মঙ্গলবার সিরিয়া ও আফগানিস্তানের ৬০ শরণার্থীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

২০১৫ সালে সার্বিয়া সীমান্ত দিয়ে হাঙ্গেরি অন্তত দুই লাখ শরণার্থী প্রবেশ করেছে। শরণার্থীদের প্রবেশ ঠেকাতে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার ইঙ্গিত দেয়ার পর মঙ্গলবার জরুরি অবস্থা ঘোষণা করলো দেশটি।

এর আগে, সোমবার অভিবাসীদের আশ্রয় দেয়ার প্রসঙ্গে জরুরি বৈঠকে কোনো ঐকমত্যে পৌঁছাতে পারেনি ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীরা। ফলে মূল আলোচ্য বিষয়ে অর্থাৎ এক লাখ বিশ হাজার জরুরি আশ্রয়প্রার্থীকে সদস্য রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে বণ্টন করার ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি তারা।

শেয়ার করুন