স্বর্গলোকে ফিরে যাচ্ছেন দুর্গা: বিকেলে প্রতিমা বিসর্জন

প্রকাশিত

ডেস্ক প্রতিবেদনঃ অশ্রুসজল নয়নে শুক্রবার মহাশক্তি দেবীর প্রতিমা বিসর্জন দেবেন ভক্তরা। বৃহস্পতিবার শারদীয় দুর্গোৎসবের মহানবমী ও দশমী পূজা সম্পন্ন হয়েছে। এদিন পূজামণ্ডপে ছিল কেবলই বিষাদের ছায়া।

বৃহস্পতিবার শেষ হয়েছে মায়ের পূজা-অর্চনা। সব ধর্ম-বর্ণের মানুষের উৎসবে রূপ নেওয়া সর্বজনীন দুর্গা পূজা শেষ হচ্ছে সম্প্রীতির আহ্বানে। তাই হিন্দু ধর্মাবলম্বী মানুষের ঘরে ঘরে মন খারাপের দিন আজ।

হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পাঁচ দিনের শারদীয় দুর্গোৎসব শেষ হবে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে। মর্ত্যলোকে পূজিত হয়ে মা দুর্গা ফের স্বর্গলোকে বিদায় নেবেন আজ। অশ্রুসজল চোখে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ বিসর্জন দেবেন দেবী প্রতিমা। সেই সঙ্গে ভাঙবে পাঁচ দিনের সার্বজনীন মিলনমেলা।

বিসর্জনের উদ্দেশ্যে রাজধানীর ঢাকেশ্বরী মন্দির মেলাঙ্গন থেকে কেন্দ্রীয় বিজয়া শোভাযাত্রা বের হবে বিকেল ৪টায়। এর আগে রাজধানীর ২২৫ পূজামণ্ডপের অধিকাংশই এসে জমা হবে পলাশীর মোড়ে। সেখান থেকে সম্মিলিত বাদ্যবাজনা, মন্ত্রোচ্চারণ ও পূজা অর্চনার মধ্য দিয়ে শুরু হবে বিজয়ার শোভাযাত্রা। সদরঘাটের ওয়াইজঘাটের বুড়িগঙ্গা নদীতে একে একে বিসর্জন দেওয়া হবে প্রতিমা।

শারদীয় দুর্গোৎসবে গতকাল একই দিনে মহানবমী ও বিজয়া দশমী অনুষ্ঠিত হয়েছে। তবে তিথি অনুযায়ী মহানবমী ও বিজয়া দশমী একই দিনে পড়লেও এর আগেই সারাদেশে শুক্রবারই বিজয়া শোভাযাত্রা সহকারে প্রতিমা বিসর্জনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। অবশ্য বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকামতে শুক্রবার সকালে বিজয়া দশমী ও প্রতিমা বিসর্জন হওয়ায় রামকৃষ্ণ মিশন পূজামণ্ডপসহ অনেক মন্দির ও পূজামণ্ডপ এই সময়সূচিই অনুসরণ করবে। এ হিসেবে এসব মন্দিরে আজ প্রতিমা বিসর্জন ছাড়াও বিজয়া দশমীর ধর্মীয় আয়োজনও থাকছে।

সনাতন বিশ্বাস ও পঞ্জিকামতে, জগতের মঙ্গল কামনায় দেবী দুর্গা এবার মর্ত্যলোকে এসেছেন নৌকায় চড়ে। আর দেবী স্বর্গলোকে বিদায় নিবেন দোলায় (পালকি) চড়ে।

ঢাকা মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটির তথ্য অনুযায়ী, এ বছর সারা দেশে ২৯ হাজার ৭৪টি মণ্ডপে দুর্গা পূজা হচ্ছে। এর মধ্যে রাজধানী ঢাকায় মণ্ডপের সংখ্যা ২২২টি।

শেয়ার করুন