হঠাৎ শুনি দুই বোন এতিম হয়ে গেছি : সংসদে শেখ হাসিনা

প্রকাশিত

সংসদ প্রতিবেদক : ১৯৭৫ সালের ৩০ জুলাই আমি ও রেহানা জার্মানী রওনা হই। ৩১শে জুলাই জার্মানী পৌঁছাই। ১৫ দিনের মাথায় হঠাৎ শুনি আমরা দুই বোন এতিম হয়ে গেছি। নিঃস্ব হয়ে গেছি। ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সপরিবারে নিহত হওয়ার পরের পরিস্থিতির স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বুধবার জাতীয় সংসদে বঙ্গবন্ধু কন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

জাতীয় সংসদে বুধবার সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি বেগম ফজিলাতুন নেসা বাপ্পির এ সংক্রান্ত লিখিত প্রশ্নের জবাবে  প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ১৫ই আগষ্ট ধানমন্ডি ৩২ নম্বর সড়কের বাসায় ঘাতকের নির্মম বুলেটের আঘাতে আমার পিতা-মাতা, ভাইসহ পরিবারের সকল সদস্যকে হত্যা করা হয়েছে। আমাদের জীবনে যেমন এই দিনটি একটি কালো দিন তেমনি বাংলাদেশের জনগণের জীবনেও নেমে আসে অমানিষার অন্ধকার।

তিনি বলেন, ১৫ আগষ্ট ঘাতকের দল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ছিলেন এবং যেদিন তাকে নির্মমভাবে হত্যা করে সেদিনও তিনি রাষ্ট্রপতি ছিলেন। আমার মা বেগম ফজিলাতুন নেছা, আমার ছোট ভাই মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন শেখ কামাল, মুক্তিযোদ্ধা লেফটেনেন্ট শেখ জামাল, দশ বছরের ছোট্ট শিশু ভাই শেখ রাসেলকে নির্মমভাবে হত্যা করে। কামাল ও জামালের নব পরিণীতা বধু যাদের হাত তখনও বিয়ের মেহেদির রঙ রাঙ্গানো, তাদের নির্মমভাবে হত্যা করে। আমার চাচা মুক্তিযোদ্ধা শেখ আবু নাসেরকে হত্যা করে। রাষ্ট্রপতির মিলিটারী সেক্রেটারী কর্নেল জামিলকে হত্যা করে। কর্তব্যরত পুলিশ অফিসারদের হত্যা করে। একই সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধা শেখ ফজলুল হক মনি এবং তার অন্ত:সত্ত্বা স্ত্রী আরজু মনিকে হত্যা করে।

কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রব সেরনিয়াবাত, তার ১৩ বছরের ছেলে আরিফ, ৪ বছরের নাতি সুকান্ত, ১৭ বছরের ভাগ্নে রিন্টু, ভ্রাতুসপুত্র সাংবাদিক শহীদ সেরনিয়াবাত, কাজের মেয়ে ও তার শিশু সন্তান পোটকাসহ আরও অনেককে নির্মমভাবে হত্যা করে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমার ফুফু হেলেন গুলির আঘাতে আহত হন। তার পুত্রবধু সাহানা, ১২ বছরের মেয়ে রীনা, ২০ বছরের বিউটি, ১৮ বছরের ছেলে খোকন গুলির আঘাতে আহত হয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করে। একইসঙ্গে ঘাতকরা আমার ছোট ফুফু লিলির বাড়িতে যায় এবং আমার ফুফা সৈয়দ হোসেনকে গ্রেফতার করে এবং ফুফুকে গৃহবন্ধী করে রাখে।

বাংলাদেশ হবে প্রাচ্যের সুইজারল্যান্ড
সরকার দলীয় সদস্য সামশুল হক চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের অক্লান্ত পরিশ্রম ও সুষ্ঠ পরিকল্পনায় বাংলাদেশ ইতিমধ্যে নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়েছে। বর্তমানে মাথাপিছু আয় ১ হাজার ৩১৪ মার্কিন ডলার। রূপকল্প-২০২১ বাস্তবায়নের প্রথম ধাপ হিসেবে মধ্যমেয়াদি ৬ষ্ঠ পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার মেয়াদ জুন ২০১৫ তে শেষ হয়। এরপরই বিশ্ব ব্যাংকের তরফ হতে বাংলাদেশ নিম্ন আয়ের দেশ হতে মধ্যম আয়ের দেশে উপনীত হওয়ার ঘোষণা আসে।

সংসদ নেতা বলেন, আমরা  নিম্ন আয়ের দেশে হিসেবে থাকতে চাই না। সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা বাস্তবায়নকালীন সময়ে  পরবর্তী পাঁচ বছরে নির্ধারিত লক্ষ্য অর্জন করে আমরা আমাদের ঘোষিত রূপকল্প ২০২১ অনুযায়ী নির্ধারিত সময়ে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হতে পারবো ইনশাল্লাহ। বাংলাদেশ হবে প্রাচ্যের সুইজারল্যান্ড।

তিন ঘণ্টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম
মো. তাজুল ইসলামের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ঢাকা হতে চট্টগ্রাম হয়ে লাকসাম সরাসরি যাতায়তের লক্ষ্য একটি প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে ঢাকা-চট্টগ্রামের রেলপথের দূরত্ব হ্রাস পাবে। তখন ৩ ঘণ্টায় ঢাকা হতে চট্টগ্রামে যাতায়াত করা সম্ভব হবে। তিনি জানান, ঢাকা হতে চট্টগ্রাম হয়ে লাকসাম সরাসরি যাতায়তের লক্ষ্য চীন সরকারের অর্থায়নে জি টু জি ভিত্তিতে কনস্ট্রাকশন অব ডাবল ট্রাক স্টান্ডার্ড গজি রেলওয়ে লাইন ফরম ঢাকা টু চট্টগ্রাম ভায়া কুমিলল্লা/ লাকসাম প্রকল্পটি বাস্তবায়নের উদ্যেগ গ্রহণ করা হয়েছে। এজন্য একটি চায়নীজ কোম্পানীর সঙ্গে ইতিমধ্যে সমঝোতা স্বাক্ষর (এমওইউ) হয়েছে। প্রকল্পটি পিডিপিপিতে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে নীতিগতভাবে অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন