ফাঁসির আগে শেষ খাবার হিসাবে সাকা-মুজাহিদ যা খেলেন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : যুদ্ধাপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত সালাউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরী ও আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ ফাঁসির আগে শেষ খাবার হিসাবে খেয়েছেন ভাতের সঙ্গে গরু ও মুরগির মাংস।এছাড়াও ছিলো আরও কিছু পদের তরকারি।

রাত ১১টার একটু আগে সালাউদ্দিন কাদের সাকা চৌধুরীকে খাবার পরিবেশন করে কারা কর্তৃপক্ষ। ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, গরুর মাংস, মুরগি, সবজি, মাছ দেওয়া হয় তাঁকে। ভাতের সঙ্গে আছে ডাল। তবে সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী খাবার বেশি নেননি। তিনি অল্প একটু নিয়ে বাকিটুকু রেখে দেন।

কেন্দ্রীয় কারাগারে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের জন্য নির্ধারিত ‘পদ্মা’ সেলের পাশাপাশি দুটি কক্ষে রাখা হয়েছে বিএনপি নেতা সাকা চৌধুরী ও জামায়াত নেতা আলী আহসান মোহাম্মাদ মুজাহিদকে।

জামায়াত নেতা মুজাহিদকেও একই ধরনের খাবার পরিবেশন করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

রাত সাড়ে ১০টার দিকে সাকা চৌধুরীর পরিবারের সদস্যরা তাঁর সঙ্গে শেষবারের মতো সাক্ষাৎ করেন।

মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল ও সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে হত্যা ও গণহত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হয়। সর্বশেষ রায় রিভিউ আবেদনেও তাঁর অপরাধ প্রমাণ করে রাষ্ট্রপক্ষ। এসব অপরাধে তাঁকে ফাঁসির দণ্ড দেওয়া হয়।