গ্রাহক হয়রানির শীর্ষে ব্র্যাক ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক : ২০১৪-১৫ অর্থবছরে বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মধ্যে গ্রাহক হয়রানির শীর্ষে ব্র্যাক ব্যাংক। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ইসলামী ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণ কেন্দ্রের (সিআইপিসি) বার্ষিক প্রতিবেদন-২০১৫ বিশ্লেষণে এ তথ্য উঠে এসেছে।

ব্র্যাক ব্যাংকের বিরুদ্ধে প্রাপ্ত অভিযোগের সংখ্যা ১৭৫টি। তালিকায় ২য় অবস্থানে রয়েছে ইসলামী ব্যাংক। এ সময়ে ব্যাংকটির বিরুদ্ধে আসা অভিযোগের সংখ্যা ১২৩টি। ব্যাংকিং খাতে হয়রানির ক্ষেত্রে গ্রাহকদের অভিযোগের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোও।

প্রতিবেদনে প্রকাশিত শীর্ষ ১০ ব্যাংকের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রাপ্তির হার বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর বিরুদ্ধে অভিযোগের পরিমাণ সব চেয়ে বেশি; যা মোট অভিযোগের ২৮.১৩ শতাংশ।

সংখ্যানুপাতে একক ব্যাংক হিসেবে সব চেয়ে বেশি অভিযোগ জমা পড়েছে রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী ব্যাংকের বিরুদ্ধে; ২৫৬টি। তালিকায় ৩য়, ৪র্থ ও ৬ষ্ঠ স্থানে রয়েছে যথক্রমে রাষ্ট্রায়ত্ত রূপালী, অগ্রণী ও জনতা ব্যাংক।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে দেশের সবগুলো ব্যাংকের বিরুদ্ধে প্রাপ্ত অভিযোগের সংখ্যা ৩ হাজার ৯৩০টি। আর সিআইপিসি চালু হওয়ার পর থেকে অর্থাৎ ২০১১ সালের মার্চ থেকে ২০১৫ সালের জুন পর্যন্ত মোট অভিযোগের সংখ্যা ১৪ হাজার ৯২০টি; যার শত ভাগই নিষ্পত্তি হয়েছে।

অভিযোগগুলোর সবচেয়ে বেশি এসেছে সাধারণ ব্যাংকিং সংক্রান্ত। এ সংখ্যা ১ হাজার ৩৬১টি; যা মোট অভিযোগের ৩৪ শতাংশ। অন্যগুলোর মধ্য রয়েছে ঋণ ও অগ্রিম সংক্রান্ত ৬৭০টি, কার্ড সংক্রান্ত ২২৮টি, মোবাইল ব্যাংকিং সংক্রান্ত ৯১টি, ট্রেড বিল সংক্রান্ত ২১টি, রেমিট্যান্স সংক্রান্ত ৬৪টি, স্থানীয় বিল সংক্রান্ত ৪১২টি, বৈদেশিক বিল সংক্রান্ত ৩৬৮টি, ব্যাংক গ্যারান্টি সংক্রান্ত ৮৭টি ও বিবিধ ৬২৮টি।