ফেসবুকে জাতীয় পরিচয়পত্র বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলতে ন্যাশনাল আইডি (জাতীয় পরিচয়পত্র) বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। কেউ চাইলে আর প্রচলিত সনাতন নিয়মে ফেসবুক খুলতে পারবেন না। সোমবার ‘১১তম সরকারি ডিসকাশন ফোরাম ফর ইলেকট্রনিক আইডেন্টিটি ২০১৫’ আয়োজন সম্পর্কে জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

পলক বলেন, ভুয়া অ্যাকাউন্টধারীদের শনাক্ত করা এবং নতুন করে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খোলা ঠেকানো যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।  ‘স্মার্ট ন্যাশনাল আইডি কার্ড প্রকল্প চালু হলে ফেসবুকের কাছে ইমেইল আইডির সঙ্গে ন্যাশনাল আইডি কার্ড ভেরিফিকেশনের জন্য নতুন অপশন যোগ করার জন্য আমরা ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে চিঠি লিখব। স্মার্টকার্ডে ইলেকট্রনিক চিপস থাকবে। ম্যানুয়াল কার্ড এন্ট্রিগুলো বাদ দিয়ে সব জায়গায় ডিজিটাল কার্ডের ব্যবহার হবে। এক কার্ডে কীভাবে সব সুযোগ সুবিধা প্রদান করা যায়, তা নিয়ে আলোচনার লক্ষ্যে এবারের ফোরামের আয়োজন করা হয়েছে।’ ফেসবুকের ভুয়া অ্যাকাউন্ট ঠেকানো গেলে দেশে নিরাপত্তা ব্যবস্থাও কার্যকরী হবে বলে উল্লেখ করেন পলক।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, প্রথম পর্যায়ে ৯ কোটি ৬২ লাখ লোককে স্মার্টকার্ড তুলে দেয়ার কাজ এখন শেষ পর্যায়ে রয়েছে। তবে কবে নাগাদ সাধারণ মানুষের হাতে স্মার্টকার্ড পৌঁছাবে এ ব্যাপারে পরিষ্কার করে কিছু জানাননি আইসিটি প্রতিমন্ত্রী।

১ থেকে ২ ডিসেম্বর রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে ১১তম সরকারি ডিসকাশন ফোরাম ফর ইলেকট্রনিক আইডেন্টিটি ২০১৫ অনুষ্ঠিত হবে। দুইদিন ব্যাপী এ ফোরামে ১৫০ জন বিদেশি বিশেষজ্ঞ উপস্থিত থাকবে। ২৬টি বিদেশি ও ২টি দেশি প্রতিষ্ঠান ফোরামে অংশগ্রহণ করবে।