কারচুপি করতেই সরকারি কর্মকর্তাদের নিয়োগ : বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক : আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে কারচুপির পরিকল্পনা নিয়েই সরকারি কর্মকর্তাদের রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি।

আজ বৃহস্পতিবার রাতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে এ কথা জানান দলটির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে রাত সাড়ে ৮টায় বৈঠক শুরু হয়, চলে প্রায় দেড় ঘণ্টা। এতে সভাপতিত্ব করেন খালেদা জিয়া।

এক বছর পর অনুষ্ঠিত বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ বৈঠকে দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিসহ সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। বিশেষ করে পৌর নির্বাচনে দলের কৌশল নির্ধারণের বিষয়টি এতে প্রাধান্য পায়। এ ছাড়া দলের পুনর্গঠন প্রক্রিয়া নিয়েও আলোচনা হয় বৈঠকে।

বৈঠক শেষে এ বিষয়ে ব্রিফিং করেন দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব।  তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন কিছু কিছু পৌরসভায় জেলা প্রশাসক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও ইউএনওকে (উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা) রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে। অথচ রিটার্নিং অফিসার নিয়োগের ক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের কর্মকর্তার সংকট রয়েছে, তাও নয়।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘জনপ্রশাসনে বর্তমান সরকারের চরম দলীয়করণে জনমনে এই বিশ্বাস জন্মেছে যে, আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে কারচুপির পরিকল্পনা নিয়েই সরকারি কর্মকর্তাদের রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।’

বৈঠকে স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ, আ স ম হান্নান শাহ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান, ড. আবদুল মঈন খান, জমির উদ্দিন সরকার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।