প্রধানমন্ত্রীর ভিশন বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছেন জনপ্রিয় জেলা পরিষদ সদস্য সেলিম মন্ডল

শাহীন আলম চৌধুরী: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন ঢাকা জেলা পরিষদের জনপ্রিয় সদস্য এবং সাভার থানা যুবলীগের সভাপতি সেলিম মন্ডল।নির্বাচনী এলাকার এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্তে ছুটে বেড়াচ্ছেন এলাকার উন্নয়নে। সেবামূলক প্রতিষ্ঠানগুলোকে আর্থিক সহায়তা দেওয়ার পাশাপাশি এ কার্য্ক্রমকে সুন্দরভাবে পরিচালনার জন্য নিয়েছেন নানা পদক্ষেপ। এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আর সড়ক উন্নয়নে নিয়েছেন নানা পদক্ষেপ।

সম্প্রতি শেষ হওয়া জেলা পরিষদের নির্বাচনে বিপুল ভোটে প্রতিদ্বন্দি প্রার্থীকে পরাজিত করে আলোচনায় উঠে আসেন যুবলীগের প্রভাবশালী নেতা সেলিম মন্ডল। পারিবারিকভাবে পুরোদস্তর আওয়ামী পরিবারের সন্তান সেলিম মন্ডল। বাবা ৮০’র দশকে সাভার উপজেলা কৃষকলীগের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। রাজপথ কাপানো তুখোড় যুব নেতা সেলিম মন্ডল মাধ্যমিকের গন্ডি পেরুনোর পরপরই পাড়ি জমান ইউরোপে। পাশ্চ্যাত্যের ভোগ-বিলাসী জীবন ছেড়ে দেশের মায়ায় অল্প কিছুদিনের মধ্যেই ফের দেশে ফিরে আসেন সেলিম মন্ডল। দেশে ফিরেই ইউনিয়ন যুবলীগের রাজনীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন। রাজপথে সক্রিয় থাকায় ১৯৯৮ইং সালে তাকে বিরুলীয়া ইউনিয়ন যুবলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। সে্ই থেকে আওয়ামী রাজনীতির সাথে ওৎপ্রোতভাবে জড়িয়ে পড়েন তিনি। পরবর্তীতে সরকার বিরোধী আন্দোলনে রাজপথে সক্রিয় থাকার কারনে তৎকালীন থানা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আলাল নিজেই বাদী হয়ে ৮টি মামলা দায়ের করেন তার বিরুদ্ধে। রাজপথে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় দায়ের করা মামলার সংখ্যা আরও বেশী। বিরোধী দলের রাজনীতির প্রতিহিংসার স্বীকার হয়েছেন একাধিকবার। তারপরও বঙ্গবন্ধু তথা আওয়ামী রাজনীতির মোহ তাকে পিছু হটাতে পারেনি । বরং আওয়ামী রাজনীতির প্রতি ভালোবাসা  বাড়িয়ে দিয়েছে আরও কয়েকগুন। এরই ধারাবাহিকতায় প্রথমে সাভার উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক এবং পরবর্তীতে সাভার থানা যুবলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন সেলিম মন্ডল। সভাপতি নির্বাচিত হয়ে সাভারের আওয়ামী রাজনীতিতে আলোচনার ঝড় তোলেন যুবলীগের প্রভাবশালী এ নেতা। সম্প্র্রতি্ অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া বিরুলীয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে প্রথমে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেও রাজনৈতিক মেরুকরনের কারনে তার স্থলে দলের আরেক নেতাকে মনোনয়ন দেওয়া রাজনীতির মাঠে হোচট খায় সে। রাজনীতিতে উত্থান আর পতন দুটোই বাস্তব এমন মনোভাব থেকে মনোবল হারায়নি যুবলীগের এ ত্যাগী ও নির্ভীক নেতা। সক্রিয় থেকেছেন আওয়ামী রাজনীতিতে। পরবর্তীতে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী হয়ে ঢাকা জেলা পরিষদের নির্বাচনে ১০নং ওয়ার্ড থেকে প্রতিদ্বন্দিতায় অংশ নেন সেলিম মন্ডল। প্রতিদ্বন্দি প্রার্থীকে এ নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যাবধানে পরাজিত করার পর সেলিম মন্ডলের নাম চাউড় হতে থাকে সকলের মুখে মুখে। আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে পরিণত হয় সাভার থানা যুবলীগের সভাপতি সেলিম মন্ডলের নাম।

এ প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে সাভার থানা যুবলীগের সভাপতি সেলিম মন্ডল জানান, আমি দলের জন্য নিরলসভাবে ব্যক্তি স্বার্থের উর্দ্ধে থেকে কাজ করে যাচ্ছি যার প্রতিদান দল আমাকে দিয়েছেন। তিনি বলেন জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এলাকার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি। তিনি বলেন, আমার বাবা, ভাইসহ অনেক নিকত্ময়ই আওয়ামী রাজনীতির সাথে ওৎপ্রোতভাবে জড়িত। এ অঞ্চলের একমাত্র আমার পরিবারকেই সকলে আওয়ামী পরিবার হিসেবে গণ্য করে। তিনি বলেন, যে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা আর রাস্তা-ঘাট যত বেশী ‍উন্নত সেই দেশ তত বেশী সমৃদ্ধশালী আর উন্নত। আর তাই এ বিষয়টিকে মাথায় রেখেই এলাকার রাস্তা-ঘাট আর শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে বেশী জোড় দিয়েছি। এসময় তিনি তার এলাকায় একটি কলেজ স্থাপনে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান। সেলিম মন্ডল এসময় বলেন, আওয়ামী রাজনীতির একজন কর্মী হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগীতাও কামনা করেন তিনি।

শাহীন আলম চৌধুরী

সাভার-ঢাকা

১৭.০৩.১৭ইং।