সরকারি স্থাপনায় নাশকতার পরিকল্পনা ছিল জঙ্গিদের: র‌্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদক : র‌্যাবের হাতে আটক পাঁচ জঙ্গির সরকারি স্থাপনায় নাশকতার পরিকল্পনা ছিল। ওই নাশকতা পরিকল্পনা বাস্তবায়নে দুই জঙ্গিকে দায়িত্বও দেয়া হয়েছিল। মঙ্গলবার বেলা আড়াইটার দিকে রাজধানীর কাওরান বাজারস্থ র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে এমন তথ্য জানিয়েছেন র‌্যাবের অতিরিক্ত মহা পরিচালক (অপারেশন) কর্নেল আনোয়ার লতিফ খান।
তিনি জানান, সোমবার রাত সাড়ে ৮টা থেকে সাড়ে ৯টা পর্যন্ত রাজধানীর বাড্ডা এলাকায় অভিযান চালিয়ে অলিউজ্জামান ওরফে অলি (২৮) ও আনোয়ারুল আলমকে (২৯) আটক করা হয়। এরপর তাদের দেয়া তথ্যমতে রাত ৩টায় সায়দাবাদ বাসস্ট্যান্ড থেকে সালেহ আহমদ শীষ (২২), আবুল কাশেম (২৭) ও মো. মোহন ওরফে মহসিনকে (২০) আটক করা হয়।
এসময় তাদের কাছ থেকে বিস্ফোরক, বোমা তৈরির সরঞ্জামাদি, জঙ্গিবাদী বই, ডামি পিস্তল ও বন্দুক, নগদ তিন লাখ ১৪ হাজার টাকাসহ অন্যান্য সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়।
র‌্যাবের ওই কর্মকর্তা জানান, আটকরা সবাই জঙ্গি সংগঠনের একটি সেলের সদস্য। প্রায় সোয়া এক বছর ধরে তারা একত্রিত হয়েছে। তাদের দলে মোট ১০ থেকে ১২ জন সদস্য রয়েছে। তাদের মধ্যে অধিকাংশই রাজধানীর মিরপুর ও কাফরুল এলাকার বাসিন্দা। ওই সেলের নিয়ন্ত্রক ছিলেন আটক অলিউজ্জামান ওরফে অলি।
সেলটি সম্প্রতি সরকারি স্থাপনায় নাকশতার পরিকল্পনা করছিল। আর নাশকতা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য মনির ও সালমান ওরফে আব্দুল্লাহ নামের দুইজনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল।
তিনি জানান, গোয়েন্দা নজরদারির ফলে নাশকতা সৃষ্টির আগেই ওই সেলের পাঁচ সদস্যকে আটক করা হয়েছে। তবে নাশকতা কার্যক্রম পরিচালনার দায়িত্বে থাকা মনির ও সালমান ওরফে আব্দুল্লাহসহ বাকিদের আটকের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।