হাতেখড়ি’র আয়োজনে ক্ষুদে সাংবাদিকদের প্রশিক্ষণ ও সেরা লেখক পুরস্কার প্রদান

ডেস্ক : সুপ্ত মনের মুক্ত প্রকাশ স্লোগানে জাতীয় শিশু-কিশোর পত্রিকা হাতেখড়ি’র আয়োজনে রাজধানীতে অনুষ্ঠিত হলো শিশু-কিশোর সাংবাদিকদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ। ২৯ ডিসেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিরাজুল ইসলাম লেকচার হলে সকাল ৯টায় শুরু হয় এই প্রশিক্ষণ। শিশু-কিশোর সাংবাদিক প্রশিক্ষণের চতুর্থ এই আয়োজনে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে শতাধীক ক্ষুদে সংবাদকর্মী অংশ্রগহণ করে।
সাংবাদিকতার বিভিন্ন দিক নিয়ে ক্লাশ নেন দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন’র সিনিয়র সাব-এডিটর রণক ইকরাম, একুশে টেলিভিশনের ক্রাইম রিপোর্টার ও প্রতিক্ষন ডট কমের সম্পাদক রাকিবুল হাসান ও ইনস্টিটিউট অব জার্নালিজম এন্ড কমিউিনিকেশন (আইজেসি)’র ট্রেনিং কো-অর্ডিনেটর ও প্রশিক্ষক সোহায়েল হোসেন। অংশগ্রহণকারীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর প্রদানের মধ্য দিয়ে প্রশিক্ষণ পর্বের শেষ হয়।
হাতেখড়ি পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক, শিশু সংগঠক তাহাজুল ইসলাম ফয়সাল’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্পী ও লেখক গুলশান-ই-ইয়াসমিন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরেণ্য কথা সাহিত্যিক ীপু মাহমু, কবি, সমাজকর্মী ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব আইরিন খান, শিশু সংগঠক ও ছড়াকার সৌমেন পোদ্দার ও খেলাঘর সংগঠক তৌহিদ রিপন।
অতিথিরা শুভেচ্ছা বক্তব্যে এ ধরনের প্রশিক্ষণ বেশি বেশি প্রত্যাশা করেন। শিশুদের জগৎ এখন অনেক বড়। এ জগৎকে সমৃদ্ধ করতে লেখালেখির বিকল্প নেই বলেও জানান তারা। তারা আরো বলেন, হাতেখড়ি’র কাজটি আরও বৃহৎ আকারে করতে পারলে অসংখ্য শিশু লেখালেখির প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠবে।
প্রশিক্ষণ নিয়ে হাতেখড়ি’র সম্পাদক বলেন,‘আমরা শুরুতে যে ভয়টা পেয়েছিলাম সেই ভয় এখন আর নেই। অনেক সাড়া পেয়েছি যা প্রত্যাশাও করিনি। প্রতি বছর এই আয়োজন এভাবে চালিয়ে যেতে চাই। আমরা চাই একটি শিশু তার নিজ অধিকারের কথা, ভালোলাগা ও মন্দলাগার কথা নিজেই লিখুক। তাতে করে সে যেমন একজন পাকা লেখক হিসেবে বড় হবে তেমনি আমরা একজন বুদ্ধিদীপ্ত নাগরীকও পাবো। ক্ষুদে লেখকদের উৎসাহ দিতে হাতেখড়ি সেরা লেখক পুরস্কার নিয়মিত দিয়ে যাবে বলেও জানান পত্রিকাটির সম্পাদক।
প্রশিক্ষণ পর্বের শেষে হাতেখড়ি আয়োজিত সেরা লেখক পুরস্কার বিতরণ করা হয়। অতিথিদের হাত থেকে সেরা লেখক হিসেবে পুরস্কার গ্রহণ করে অজুফা আক্তার, তানভীর ইবনে কবির, তাপস কুমার, কাজী নজরুল ইসলাম, আহসান হাবিব মারুফ ও ওয়াশিম আকরাম শিশির। উল্লেখ্য যে, হাতেখড়িতে প্রকাশিত লেখার মধ্য থেকে প্রতি ুই মাস পর পর সংবা ও সৃজনশীল বিভাগে দু’জনকে সেরা লেখক হিসেবে ঘোষণা করা হয়।
পত্রিকার নিউজরুম এডিটর আব্দুল্লাহ আল মামুনের সঞ্চালনায় এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইভেন্ট ম্যানেজার সাকিব মোহাম্মদ দিপ্ত, সমন্বয়ক জান্নাতুল মোহনা, হাসান ইবনে কামাল, বিশ্বজিৎ দাস বিজয়, মো: হাবিবুর রহমান, রাইসুল ইসলাম সৌখিন প্রমুখ। প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণের মধ্য দিয়ে আয়োজনের সমাপ্তি ঘটে।