ফোন নাম্বার ও ইমেইল দিয়ে ফেসবুকে অনুসন্ধান বন্ধ

ডেস্ক : ফোন নাম্বার ও ইমেইল আইডি দিয়ে ফেসবুকে তথ্য অনুসন্ধানের সুবিধা বাতিল করা হয়েছে। এই সুবিধার অপব্যবহার হচ্ছিল বলে তা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সামাজিক মাধ্যমটির কর্তৃপক্ষ।

ফেসবুকের প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা মাইক শোফার বলেন, ফোন নাম্বার আর ইমেইল দিয়ে সার্চ করার সুবিধা কাজে লাগাচ্ছে ‘বিদ্বেষপরায়ণ লোকেরা’। এই উপায়ে ‘অধিকাংশ’ ব্যবহারকারীর প্রোফাইল থেকে তথ্য সংগ্রহ করা যেত। এ কারণে আমরা এই ফিচার বন্ধ করে দিয়েছি।

ফেসবুকে এর আগে ব্যবহারকারীদেরকে তাদের অ্যাকাউন্টে ফোন নাম্বার যুক্ত করতে উৎসাহিত করা হত। প্রতিষ্ঠানটি বলতো, এর মাধ্যমে বন্ধুদের সঙ্গে যুক্ত হওয়া আর অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা বাড়ানোর পথ আরও সহজ হয়। প্রোফাইলে ফোন নাম্বার দেখানো হবে কিনা তা ব্যবহারকারীরা ঠিক করে দিতে পারেন। কিন্তু ডিফল্ট ব্যবস্থা হচ্ছে, যে কেউ কারও ফোন নাম্বার দিয়ে সার্চ করে তার প্রোফাইল বের করতে পারে।

ফোন নাম্বার দিয়ে প্রোফাইল দেখানো বা না দেখানোর ক্ষেত্রে ব্যবহারকারী পুরোপুরি নিজের ইচ্ছা মতো বাছাই করতে পারতেন তাও নয়। এই সুবিধা শুধু নিজের বন্ধুদের জন্যই করে রাখতে পারতেন তারা।

ফেসবুক বলেছে, বন্ধুদের খুঁজে পেতে এই ফিচার একটি ‘দরকারি’ সুবিধা, বিশেষত যেসব দেশে একই নামে অনেক ব্যক্তি রয়েছেন। এমন দেশের উদাহরণে টেনে আনা হয় বাংলাদেশের কথাও।

বাংলাদেশ থেকে কোনো ব্যক্তির প্রোফাইল খুঁজতে করা সব সার্চের মধ্যে সাত শতাংশই ফোন নাম্বার দিয়ে করা হতো বলেও জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।