ঈদের দিন বাইরের খাবার পাচ্ছেন না কাশিমপুরের কয়েদিরা

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : এবার পবিত্র ঈদুল আজহার দিন বাইরের খাবার খেতে পারবেন না কাশিমপুর কারাগারের বন্দীরা। ঈদের দিন কারাগারের দেয়া বিশেষ মেন্যু অনুযায়ী খাবার খেতে হবে তাদের। কাশিমপুর কারাগার সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, ঈদের দিন সকালে নামাজের আগে মুড়ি ও পায়েস দেয়া হবে বন্দীদের। দুপুরে পাবেন সাদাভাত, রুই মাছ আর আলুর দম। আর রাতের বিশেষ মেন্যুতে তাদের জন্য রয়েছে পোলাও, কোরবানির গরু অথবা খাসির মাংস, ডিম, মিষ্টি এবং পান-সুপারি।

তবে বিশেষ দিনগুলোতে বাইরের খাবার খাওয়ার সুযোগ থাকলেও এবার বন্দীরা সেই সুযোগ পাচ্ছেন না। নিরাপত্তার স্বার্থে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন কাশিমপুরের একাধিক কারাগারের কর্তৃপক্ষ।

কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার (পার্ট-২) এর জেলার নাসির উদ্দিন বলেন, ঈদের দিন বাইরের কোনো খাবার গ্রহণ করা হবে না। তবে বন্দীরা কর্তৃপক্ষের কাছে খাবার ভেতরে নেয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন। কারা কর্তৃপক্ষের অনুমতি পেলে ঈদের পরের দুইদিন তারা বাইরের খাবার খেতে পারবেন।

কাশিমপুরের কারাগারগুলোতে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন কাদের চৌধুরী, জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী, ডিজিএফআইয়ের সাবেক কর্মকর্তা উয়িং কমান্ডার মো. সাহাব উদ্দিন, নারায়ণগঞ্জের সাত খুন মামলার আসামি সাবেক লে. কমান্ডার এম মাসুদ রানা, মেজর আরিফ, আমার দেশ পত্রিকার সাংবাদিক মাহমুদুর রহমান, সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদসহ প্রায় তিন হাজারের বেশি বন্দী রয়েছেন।

শেয়ার করুন