ক্রিকেটারদের যেখানে যার ঈদ কাটছে

প্রকাশিত

ক্রীড়া প্রতিবেদক : বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের ঈদুল আজহার ছুটি শুরু হয়েছে মঙ্গলবার থেকে। গত ঈদে দক্ষিণ আফ্রিকার সিরিজ ছিল বলে পরিবার-পরিজনের সঙ্গে ঈদ করার সুযোগ পান নি জাতীয় দলের অনেক ক্রিকেটার। এবারও তাদের অনেকেই পাচ্ছেন না পরিবার-পরিজনের সঙ্গে ঈদ করার সুযোগ। ‘এ’ দলের হয়ে ভারত সফরে রয়েছেন জাতীয় দলের অনেক ক্রিকেটার।

এদিকে, ওয়ালটন ১৭তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের প্রথম রাউন্ডে খেলেছেন জাতীয় দলের অধিকাংশ ক্রিকেটাররা। সোমবার শেষ হয়েছে লিগের প্রথম রাউন্ড। তাই খেলা শেষে যে যার গন্তব্যের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছেন। আগামী ২৭ তারিখ শেষ হবে তাদের ছুটি। বাংলাদেশ দলের কোচ চণ্ডিকা হাথুরুসিংহে ছুটিতে থাকায় ফিরে এসে বাংলাদেশ দলের ফিজিওর কাছে তারা রিপোর্ট করবেন।

দেশসেরা উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তামিম ইকবালের বাড়ি চট্রগ্রামে। তার পরিবারের সবাই ওখানেই থাকেন। তাই চট্রগ্রামেই ঈদ করবেন তামিম।

‘কাটার মুস্তাফিজ’ খ্যাত মুস্তাফিজুর রাহমান ইতোমধ্যেই পৌঁছেছেন তার গ্রামের বাড়ি সাতক্ষীরাতে। সেখানে বাবা-মা, ভাই-বোনদের সঙ্গে ঈদ করবেন বাংলাদেশ দলের এই নবীন পেসার।

দেশে থাকলে বরাবরই পরিবারের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করেন বাংলাদেশ দলের টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। এবারো ঈদ করতে স্ত্রী মন্ডিকে নিয়ে বগুড়ায় পৌঁছেছেন মুশফিকুর রহিম।

পরিবারের টানে বাড়িতে ঈদ করবেন দেশসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানও। আর তার স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির রয়েছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। তাই এবারের ঈদটা মাগুরায় বাবা-মা ও ছোট বোনের সঙ্গে উদযাপন করছেন দেশসেরা এই অলরাউন্ডার।

স্ত্রী ও ছেলেকে নিয়ে ময়মনসিংহে ঈদ করবেন বাংলাদেশ দলের মিডেল অর্ডারে অন্যতম সেরা ভরসা মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ইতোমধ্যেই তার পরিবারের অন্য সদস্যরা সেখানে পৌঁছেছেন।

বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে ভারতে ছিলেন নবীন উদয়মান বোলার তাসকিন আহমেদ। কিন্তু হঠাৎ ইনজুরিতে পড়ায় দেশে ফিরে এসেছেন এই পেসার। ঢাকার ছেলে তাসকিন প্রতিবছর ঈদ করেন ঢাকাতেই। এবারো তাই ঢাকাতেই ঈদ করবেন।

২৮ সেপ্টেম্বর দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ সফরে আসবে অস্ট্রেলিয়া। তাই ঈদের আমেজ শেষ না হতেই টাইগারদের পড়তে হচ্ছে কঠিন পরীক্ষায়।

শেয়ার করুন