পাহাড় খুঁড়ে মিলল আস্ত স্বর্ণের ট্রেন!

ডেস্ক প্রতিবেদন : আস্ত একটা স্বর্ণের ট্রেন! পোল্যান্ডের একটি পাহাড় খুঁড়ে এই ট্রেনের সন্ধান মিলেছে। পোল্যান্ডের শহরে কান পাতলে এমন কথাই এখন কানে আসছে। গুজব না কি সত্যিই এমন ট্রেনের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে? যা কি না ৭০ বছর আগে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় আচমকাই মাঝপথ থেকে উধাও হয়ে গিয়েছিল।

১৯৪৫ সালে বিশ্বযুদ্ধের সময় হাঙ্গেরি থেকে প্রচুর অস্ত্র, বন্দুক, মূল্যবার রত্ন এবং স্বর্ণ নিয়ে জার্মানি যাচ্ছিল ট্রেনটি। পথে ১৫০ মিটার লম্বা ওই ট্রেনটি জার্মান শহর রোক্ল-তে পর্বতের টানেলের মধ্যে প্রবেশ করে। সে সময়ে শহরটির নাম ছিল ব্রেসলউ। কিন্তু টানেল থেকে ট্রেনটি আর বের হয়নি। খুব অদ্ভুত ভাবেই তখন থেকে ট্রেনটির কোনো হদিস মেলেনি। পরে টানেলের মুখগুলি বন্ধ করে দেওয়া হয়। ঘটনাটি প্রায় ধামাচাপা পড়েই গিয়েছিল। নতুন করে সেই ঘটনা আবার সামনে উঠে এল দুই ব্যক্তিকে ঘিরে।

৭০ বছর পর সেই ট্রেনটির খোঁজ মিলেছে বলে দাবি করলেন জার্মানির দুই ‘ট্রেজার হান্টার’। যাতে ৩০০ টন স্বর্ণ মজুত রয়েছে বলে তাদের দাবি। কিন্তু কী ভাবে এবং কোথায় ট্রেনটির খোঁজ মিলল তা এখনও স্পষ্ট ভাবে জার্মান সরকারকে জানাননি তারা। সন্ধান দেওয়ার বিনিময়ে ট্রেনটিতে মজুত স্বর্ণের ১০ শতাংশ দিতে হবে, এই শর্ত তারা দিয়েছেন।

দুই ট্রেজার হান্টারের দাবি কতটা গ্রহণযোগ্য তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। খোঁজ চালানো হচ্ছে ৭০ বছর আগে ট্রেনটি যেখান থেকে উধাও হয়ে গিয়েছিল সেই অঞ্চলেও।

ঐতিহাসিক জোয়ানা ল্যাম্পার্স্কার মতে, এটা গুজব। এর আগেও ওই অঞ্চলে ট্রেনের খোঁজ করা হয়েছে। কিন্তু কোনো লাভ হয়নি।

সূত্র: এপিবি আনন্দ