বর্জ্য অপসারণ করা হবে ৩০ ঘণ্টায়: আনিসুল হক

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : ৪৮ ঘণ্টা নয় বরং ৩০ ঘণ্টার মধ্যেই কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণের চেষ্টা করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আনিসুল হক। এজন্য গত একমাস ধরে প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

আনিসুল হক বলেন, পশু কোরবানির জন্য ডিএনসিসি এলাকার ২৭৯টি স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে। এসব স্থানে যাতে পশু কোরবানি দেওয়া হয় সে জন্য নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানান তিনি। অবশ্য বৃষ্টির কারণে নির্ধারিত স্থানগুলোতে পশু কোরবানি করা যাবে কিনা তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন মেয়র। বৃষ্টি হলে নির্ধারিত স্থানগুলোতে কোরবানি করা সম্ভব না হলে এর আশপাশের স্থানে করা যায় কিনা তা ভেবে দেখার আহ্বান জানান তিনি।

মঙ্গলবার মহাখালী কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ ব্যাপারে কথা বলেন মেয়র। তিনি বলেন, ‘পশু কোরবানির জন্য তিন শতাধিক ইমাম ও কসাইয়ের ব্যবস্থা রয়েছে। সচেতনতা বাড়াতে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে মাইকিং শুরু হয়েছে।’

মেয়র আরও বলেন, ‘বর্জ্য অপসারণ জোরদার করতে সিটি করপোরেশনের কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। বর্জ্য পরিষ্কারের জন্য পলিব্যাগ থাকবে। দুর্গন্ধ যাতে না ছড়ায় সে জন্য ব্লিচিং পাউডার, স্যাভলন ছিটানো হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিএম এনামুল হক, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন বিপন কুমার সাহা, আজিজ ফুড অ্যাণ্ড বেভারেজের পরিচালক আলতাফ হোসেন, ২০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ নাসির, পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক গ্রুপ পিএসপির সভাপতি নাহিদা আক্তার লাকী প্রমুখ।

শেয়ার করুন