বাংলাদেশের এই অবস্থা কেউ দেখতে চায়নি: ফখরুল

প্রকাশিত

মুক্তমন ডেস্কঃ আজকে বাংলাদেশের যে অবস্থা তা কেউ দেখতে চায়নি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ বুধবার স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠক মরহুম শাহজাহান সিরাজের স্মরণে আয়োজিত এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট রিসার্চ অ্যান্ড কমিউনিকেশন (বিএনআরসি) এ সভার আয়োজন করে।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমি শাহাজাহান সিরাজকে শুধু বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই না। দেশের মানুষও তা চায় না। শাহাজাহান সিরাজকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের ইশতেহার পাঠকারী, স্বাধীনতা সংগ্রাম ও স্বাধীনতা যুদ্ধের একজন নায়ক হিসেবেই তারা দেখতে চান এবং সেভাবেই তারা দেখেছেন। এদেশকে একটি সুখী-সমৃদ্ধ দেশ গড়ার জন্য লড়াই করেছিলেন শাহাজাহান সিরাজ। শাহাজাহান সিরাজের সারাটা জীবন এই সংগ্রামের মধ্য দিয়ে গেছেন।

তিনি আরো বলেন, দুর্ভাগ্য ইতিহাসকে আজ বিভিন্নভাবে বিকৃতি করা হচ্ছে। যার যার দৃষ্টিকোণ থেকে নিয়ে আসা হচ্ছে।

একই সাথে ব্যক্তিগত স্বার্থ, দলীয় স্বার্থকে চরিতার্থ করার জন্য তারা তাদের মতো করে ইতিহাস রচনা করছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমি খুব কষ্ট পাই, দুঃখ পাই, যখন দেখি আমাদের স্বাধীনতা যুদ্ধের যারা বীর, যারা তাদের জীবনকে বাজি রেখে লড়াই করেছেন, তারা চলেও গেছেন, বেঁচে নেই, তাদের সম্পর্কে যখন আলোচনা ওঠে তখন দেখি সেই মহান ব্যক্তিকে খাটো করে দেখার চেষ্টা করা হচ্ছে। একজন মানুষকে যতটুক পাওনা সেটুকু দেয়া বোধহয় প্রত্যেকটা রাজনৈতিক নেতার, সাংবাদিক, বুদ্ধিজীবীর দায়িত্ব।

তিনি বলেন, আমরা যদি সত্যিকার অর্থে আমাদের পূর্বপুরুষদের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে চাই তবে ১৯৭১ সালের মতো একটি জাতীয় ঐক্য তৈরি করতে হবে। সেই ঐক্যের মাধ্যমেই এদেশের মানুষের ভোটের অধিকার ও অন্যান্য অধিকার ফিরিয়ে আনতে হবে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জহির উদ্দিন স্বপনের সঞ্চালনায় ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর হাফিজসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ আলোচনায় অংশ নেন।

শেয়ার করুন