বিএসএফের নির্যাতনে নওগাঁ সীমান্তে বাংলাদেশির মৃত্যু

নওগাঁ প্রতিনিধি : জেলার সাপাহার উপজেলার কলমুডাঙ্গা সীমান্তে কবির হোসেন (২৮) নামে এক বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ীকে নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করে বিলের পানিতে ফেলে দিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)।

হত্যাকাণ্ডের দুদিন পর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে লাশটি ভারতের অভ্যন্তরে ২৩৮নং মেইন পিলারের জিরো পয়েন্টে বিলের পানিতে ভেসে উঠে।

নিহত কবির হোসেন সাপাহার উপজেলার কলমুডাঙ্গা বলিহার গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে।

নওগাঁর ১৪ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল রফিকুল হাসান জানান, মঙ্গলবার তিনজনের একটি দল গরু আনতে ভারতে প্রবেশ করে। গরু নিয়ে তারা ওইদিনই বাংলাদেশে ফেরত এলেও নিখোঁজ থাকেন কবির হোসেন।

কবিরের সঙ্গে ভারতে যারা গিয়েছিলেন তারা জানান, কবির ভারতের অভ্যন্তরে ৩১ বিএসএফের আদাডাঙ্গা ক্যাম্পের বিএসএফ এর হাতে আটক হয়েছেন।

দুদিন পর বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশের সাপাহার উপজেলার কলমুডাঙ্গা সীমান্তের ২৩৮ নং জিরো পয়েন্টেরে কাছে ভারতের অভ্যন্তরে বিলের পানিতে একটি লাশ ভেসে উঠে। বিএসএফ লাশটি উদ্ধার করে বিজিবিকে জানায়, তারা একজন বাংলাদেশির লাশ উদ্ধার করেছে।

ধারণা করা হচ্ছে, লাশটি নিখোঁজ বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ী কবির হোসেনের।

তিনি আরো জানান, এ ব্যাপারে বাংলাদেশের ১৪ বিজিবির কলমুডাঙ্গা কোম্পানী কমান্ডারের পক্ষ থেকে ৩১ বিএসএফের আদাডাঙ্গা ক্যাম্পে চিঠি দেওয়া হয়েছে।