রংপুরে জাপানি নাগরিককে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত

রংপুর প্রতিনিধি : রংপুরে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এক জাপানি নাগরিককে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহতের নাম ওসি কুনিও। শনিবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে রংপুরের কাউনিয়ায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ বলছে, শনিবার সকাল আনুমানিক সাড়ে ১০টার দিকে ওসি কুনিও কাউনিয়ার আলুটারি এলাকায় গুলিবিদ্ধ হন এবং হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যান।

কাউনিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম জানান, ওসি কুনিও গত ৩-৪ মাস রংপুর শহরে অবস্থান করছিলেন এবং জাপানি ঘাস চাষের একটি প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। কর্মসূত্রে তিনি প্রায়ই আলুটারি এলাকায় যাতায়াত করতেন।

তবে কারা হত্যাকাণ্ডটি ঘটিয়েছে সে সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি এবং নিহত ব্যক্তির কাছ থেকে কোনো মূল্যবান দ্রব্য খোয়া যায়নি বলেও পুলিশ জানিয়েছেন।

‌এদিকে হোসি কুনিও হত্যার ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার হত্যাকান্ড ঘটার পর থেকে নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন, মুন্সিপাড়ার বাড়ির মালিক জাকারিয়া বালা, জাপানি নাগরিকের প্রকল্প সহকারী হুমায়ুন কবীর হীরা, রিকশাচালক মোন্নাফ ও মুরাদ। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

এর আগে সকাল ১০টার দিকে প্রকাশ্য দিবালোকে দুর্বৃত্তরা গুলি চালায় হোসি কুনিওর ওপর। এর মধ্যে তিনটি গুলি লাগে তার শরীরে। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ জানায়, দৃর্বৃত্তরা মৃত্যু নিশ্চিত করতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হোসি কুনিওর হাতের রগ কেটে দেয় এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে জখম করে।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানান, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে রংপুর জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) আব্দুর রাজ্জাক আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি আমরা তদন্ত করছি।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, পুলিশের রংপুর রেঞ্জের উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) হুমায়ুন কবীর, জেলা প্রশাসক (ডিসি) রাহাত আনোয়ার, পুলিশ সুপার (এসপি) আবদুর রাজ্জাকসহ প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা।

শেয়ার করুন