রোড মার্চে পুলিশি হামলার বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : সুন্দরবন রক্ষায় ঢাকা থেকে সুন্দরবন অভিমুখী গণতান্ত্রিক বাম মোর্চার রোডমার্চে পুলিশি হামলার গ্রহণযোগ্য বিচার বিভাগীয় তদন্ত ও হামলাকারী পুলিশ সদস্যদের আইনের আওতায় এনে বিচার ও শাস্তি দাবি করেছেন মোর্চার নেতারা।

রাজধানীর তোপখানা রোডে মঙ্গলবার দুপুরে গণতান্ত্রিক বামমোর্চার সংবাদ সম্মেলন থেকে এই দাবি জানান সংগঠনের সমন্বয়ক ও বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক।

লিখিত বক্তব্যে পুলিশি হামলার বিচার ও রামপাল কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিলের দাবিতে আগামীকাল (বুধবার) বিকেল ৪টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ, ৫ নভেম্বর দেশব্যাপী সুন্দরবন সংহতি দিবস , ২৯ অক্টোবর তেল-গ্যাস জাতীয় কমিটির বিক্ষোভ ও ১৪ নভেম্বর সুন্দরবন রক্ষায় জাতীয় কমিটির কনভেনশনের প্রতি সমর্থন জানান সাইফুল হক।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (মার্কসবাদী) নেতা শুভ্রাংশু চক্রবর্তী, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, গণ সংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন নান্নু, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের আহ্বায়ক হামিদুল হক প্রমুখ।

সুন্দরবন ও দক্ষিণাঞ্চলের প্রাণ, প্রকৃতি ও জীব বৈচিত্র রক্ষায় রামপাল কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিলের দাবিতে ১৬ থেকে ১৮ অক্টোবর ঢাকা থেকে বাগেরহাটের কাটাখালি পর্যন্ত রোডমার্চ করে গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা। এই রোডমার্চে মানিকগঞ্জ, গোয়ালন্দ, মাগুরা, ঝিনাইদহ ও যশোরে পুলিশী হামলার শিকার হয় বামমোর্চার গাড়িবহর।

শেয়ার করুন