লাশকাটা ঘরে জ্যান্ত হয়ে উঠল মৃত মানুষ!

প্রকাশিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের মুম্বইতে মৃত ঘোষিত এক ব্যক্তি হাসপাতালে পোস্ট মর্টেমের ঠিক আগে হঠাৎ করে জেগে উঠেছেন। এই অদ্ভুত ঘটনায় শহরে শোরগোল পড়ে গেছে।

যে চিকিৎসক ওই ব্যক্তির ডেথ সার্টিফিকেট সই করেছিলেন তার বিরুদ্ধে পুলিশ কর্তৃপক্ষ তদন্ত দাবি করেছে।

বছর পঞ্চাশেকের ওই ব্যক্তিকে স্থানীয় একটি বাসস্ট্যান্ডে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা গিয়েছিল।

খবর পেয়ে পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে এবং পুলিশের গাড়িতে করেই তাকে নিকটবর্তী লোকমান্য তিলক মিউনিসিপ্যাল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

মুম্বই শহরতলির সিয়ন এলাকার ওই সরকারি হাসপাতালের এক চিকিৎসক ওই ব্যক্তির নাড়ি পরীক্ষা করে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এরপর তাঁর দেহটি হাসপাতালের মর্গেও নিয়মমাফিক বেশ কিছুক্ষণ রেখে দেওয়া হয়।

তারপর যখন দেহটিকে ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, তখনই হাসপাতালের কর্মীরা হঠাৎ লক্ষ্য করেন ওই ব্যক্তির পেটটি ওঠানামা করছে।

এমন কী তাঁকে তখন শ্বাসপ্রশ্বাস নিতেও দেখা যায়। সঙ্গে সঙ্গে পোস্ট মর্টেমের বদলে তাঁকে পাঠানো হয় হাসপাতালের ইএনটি বা কান-নাক-গলা বিভাগে।

গোটা ঘটনার কথা জানাজানি হওয়ার পর পুলিশ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে চরম অবহেলার অভিযোগ এনেছে।

তবে লোকমান্য তিলক হাসপাতালের ডিন দাবি করেছেন, ওই ব্যক্তি ছিলেন ‘অ্যালকোহলিক’ এবং তিনি ‘নিজের প্রতি অবহেলা’ করেছেন।

তিনি আরও জানিয়েছেন ওই ব্যক্তির মুখে ‘ম্যাগট’ বা মাছির লার্ভা পর্যন্ত ছিল, যেটা সাধারণত মৃত্যুর লক্ষণ হিসেবেই বিবেচনা করা হয়।

শেয়ার করুন