১৬ কোটি মানুষকে ইলেকট্রিক শক দিয়েছে সরকার

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধিকে অযৌক্তিক উল্লেখ করে কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেছেন, ‘গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়িয়ে সরকার দেশের ১৬ কোটি মানুষকে ইলেকট্রিক শক দিয়েছে।’

শনিবার রাজধানীর পুরানা পল্টন মোড়ে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) পল্টন থানার উদ্যোগে গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ানো বন্ধ, জনজীবনের সঙ্কট দূর ও যানজট এবং জলজট মুক্ত ও অচল ঢাকা সচল করে সাধারণ জনগণের বাসযোগ্য ঢাকা গড়ে তোলার দাবিতে এক বিক্ষোভ সমাবেশ তিনি এ মন্তব্য করেন।

সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, ‘বিশ্ববাজারে যেখানে তেলের দাম কমেছে, সে কারেণ বিদ্যুতের উৎপাদন খরচও কমেছে। তাই দাম বাড়ানোর কোনো কারণ নেই। সরকার অযৌক্তিকভাবে গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছে। এর ফলে দেশের ১৬ কোটি মানুষকে ইলেকট্রিক শক দিয়েছে সরকার।’ তিনি সরকারকে আমলা, অসৎ ব্যবসায়ী বান্ধব না হয়ে জনবান্ধব হওয়ার আহ্বান জানান।

গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্তকে অযৌক্তিক-অগ্রহণযোগ্য ও গণবিরোধী হিসেবেও আখ্যায়িত করেন সৈয়দ আবুল মকসুদ।

সমাবেশ সিপিবির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবু জাফর আহমেদ বলেন, ‘এই সরকারের নির্বাচিত হতে জনগণের ভোট লাগে না, তাই দাম বাড়াতে জনগণের মতামতেরও তোয়াক্কা করে না। এই সরকার আইএমএফ বিশ্বব্যাংকের স্বার্থ রক্ষা করে ক্ষমতায় থাকতে চায়। তাই তাদের স্বার্থ রক্ষা করতে জনগণের ঘাড়ে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি চাপিয়ে দেয়।’ তিনি এই গণবিরোধী সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সাধারণ জনগণের ঐক্য গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

সিপিবির কেন্দ্রীয় সদস্য রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, ‘গতকাল প্রতিমন্ত্রী বলেছেন- আবার গ্যাস-বিদ্যুতের দাম বাড়বে। তাহলে বিইআরসি’র কার্যকারিতা কী? গণশুনানির নামে নাটক কেন?’

এ অবস্থা চলতে থাকলে তিনি বিইআরসি বন্ধের আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘গণবিরোধী মানুষকে মন্ত্রী হিসেবে দেশবাসী দেখতে চায় না। গৃহস্থলিতে বেশি গ্যাস ব্যবহার করে আমরা কম দাম দেই, এটি মিথ্যা তথ্য। বরং গড়ে আমরা কম গ্যাস ব্যবহার করে বেশি দাম দেই।’

পল্টন থানা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার হায়াতের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সিপিবির ঢাকা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ডা. সাজেদুল হক রুবেল, পল্টন থানা কমিটির নেতা মুর্শিকুল ইসলাম শিমুল, ত্রিদিব সাহা প্রমুখ।

শেয়ার করুন